অনিদ্রার সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে ৬টি ঘরোয়া চিকিৎসা

আজকাল নিদ্রাহীনতা বা ঘুম না আশার অভিযোগ অনেকেরই। রাতে যদি ঘুম ভাল না হয় তবে সারাটা দিন মেজাজ থাকে খিটখিটে ও চড়া. ক্লান্তি পেয়ে বসে সারা শরীরে এবং কর্মখেতরেও পড়ে নেতি বাচক প্রভাব।

অনিদ্রার সাধারণ কারণ সূমহ হচ্ছে-দুশ্চিন্তা, স্নায়বিক উত্তেজনা, শারীরিক অসুস্হতা, কোলাহল বা বিরক্তিপৃর্ণ পরিবেশ, জীবন যাপনে হঠাত্‍ পরিবর্তন,অতিরিক্ত কাফ্যেইন, ব্যথা, শ্বাস প্রশ্বাসে জটিলতা এবং কিছু ঔষধের প্বার্শ প্রতিক্রা যেমন কর্টিকোস্টেরয়েডস, আলফা ব্লকার ও এ সি ই ইনহিবিটর ইত্যাদি। এই অনিদ্রার হাত থেকে রেহাই পেতে অনেকেই অনেক কিছু করে থাকেন।

কিন্তু আমারা যদি আমাদের দৈনিক খবারে ও জীবন যাত্রায় কিছু পরিবর্তন আনি তবে খুব সহজেই এ সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে পারি।

১) জিরার গুড়া

১চা চামচ জিরার গুড়া ১টা পাকা কলার সাথে চটকিয়ে খেতে পারেন ঘুমানোর ১ ঘন্টা পূর্বে।
বিশেষ করে অজীর্ণ থেকে সৃষ্ট অনিদ্রা দূরীকরণে বেশ কার্যকর।

২) জাফরান গুড়া

জাফরানের সেডেটিভ প্রপারটিস ঘুমের জন্য ভাল কাজ করে। ঘুমুতে যাওয়ার আগে ১কাপ গরম পানির সাথে ১ চা চামচ জাফরান গুড়া মিশিয়ে পান করতে পারেন ভাল ঘুমের জন্য।

৩) পাকা কলা

পাকা কলাতে উপস্হিত ট্রিপটোফ্যান নামক এমিনো এসিড যা সেরোটোনিন হরমোনের নিঃসরণকে বাড়িয়ে দেয় এবং ভাল ঘুমের জন্য সহায়ক। কলাতে পটাশিয়াম রয়েছে পটাশিয়াম ও ম্যাগনেসিয়াম। এই ২টি মিনারেল আমাদের মাংসপেশীকে ঘুমের পূর্বে শিথিল রাখতে সাহায্য করে। ফলে রাতভর আপনি একটা গভীর নিদ্রায় যেতে পারেন।

৪) দুধ

কলার মত দুধেও ট্রিপটোফ্যান এমিনো এসিড উপস্হিত যা সেরোটোনিন হরমোনের নিঃসরণকে বাড়িয়ে দেয় এবং ভাল ঘুমের জন্য সহায়ক। এছাড়া দুধের ক্যালসিয়াম অনিদ্রা দূর করতে সহায়ক। ঘুমুতে যাওয়ার ১ ঘন্টা পূর্বে ১ গ্লাস গরম দুধের সাথে ১ চা চামচ দারুচিনির গুড়া মিশিয়ে খেতে পারেন একটা গভীর ঘুমের জন্য।

৫) মেথি গাছের পাতার রস

মেথি গাছের পাতার ২ চামচ রসের সাথে ১চামচ মধু মিশিয়ে প্রতহ খেতে পারেন ভাল নিদ্রার জন্য। মধু মানসিক অস্থিরতা দূর করে মনে আনে প্রশান্তি, যা একটা ভাল ঘুমের জন্য খুবই দরকারি।

৬) অপেল সিডার ভিনেগার

১ গ্লাস হালকা গরম পানিতে ২চা চামচ পরিমাণ আপেল সিডার ভিনেগার ও মধু মিশিয়ে খেতে পারেন।এই দ্রবণ সেরোটোনিন এবং ইনসুলিন হরমনের মাত্রাকে বাড়িয়ে দেয় যা ভাল ঘুমের জন্য দারুন কাজ করে থাকে।

৭)ঘুমুতে যাওয়ার ২ ঘন্টা আগে কুসুম কুসুম গরম পানির সাথে লেমন অয়েল বা ক্যামোমাইল অয়েল বা রোজমেরী অয়েল বা লেভেনডার অয়েল এর ভিতর থেকে যে কোন ১টি অয়েল কয়েক ফোটা মিশিয়ে লম্বা ১টা গোসল দিতে পারেন। এর ফলে আপনার শরীরের প্রন্তীয় স্নায়ুসুমহ স্নিগ্ধ ও শীতল হয় ও ভাল ঘুমের আনায়ণ করে।

অনিদ্রা দুর করার জন্য, উপরোক্ত পদ্ধতি অবলম্বণ করা পাশাপাশি নিম্নোক্ত বিষয় গুলো মেনে চলুন

১. প্রতিদিন একই সময়ে ঘুমানোর চেষ্টা করুন,
২ .শান্ত ও অন্ধকারাচন্ন ঘরে ঘুমুতে যান ,
৩ .ঘুমানোর পূর্বে অতিরিক্ত খাবেন না,
৪ .অতিরিক্ত ক্যাফেইন অর্থাৎ অতিরিক্ত চা ও কফি পান করা থেকে বিরত থাকুন,
৫. দেহে প্রশান্তির জন্য যোগ ব্যায়াম করতে পারেন ও
৬. দিনের শুরুতে হালকা ব্যায়াম করে নিন ইত্যাদি।

Advertisements

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s

Powered by WordPress.com.

Up ↑

%d bloggers like this: